Friday, August 19, 2022

বিজয় দিবসকে ঘিরে নতুন পাঁচ গান…

নিরব হাসান।

দেশ ও জনগণের প্রতি নিবেদিত গানকে দেশাত্মবোধক গান বলে। যা স্বদেশী সঙ্গীত নামেও পরিচিত। জনগণকে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ করা এবং শ্রমজীবী মানুষের অধিকার আদায়ে তাদেরকে অনুপ্রাণিত করার উদ্দেশ্যে এ গান রচিত হয়। গানের বিষয় যখন হয় দেশ তখন তাকে বলা হয় দেশাত্মবোধক গান। বাংলা দেশাত্মবোধক গানের সূচনা হয় উনিশ শতকের প্রথম ভাগে ঈশ্বর গুপ্ত ও তাঁর অনুসারীদের সঙ্গীতের মাধ্যমে। পরে উনিশ শতকের মধ্যভাগে স্বদেশী আন্দোলনকে কেন্দ্র করে এর পর্যায়ক্রমিক বিকাশ ঘটে। জোড়াসাঁকো ঠাকুর বাড়ির ‘জাতীয় মেলা’ এবং ‘সঞ্জীবনী সভা’ ছিল এর লালন ক্ষেত্র। ১৯০৫ সালে বঙ্গভঙ্গ আন্দোলনের সময় সঙ্গীতের এ নতুন ধারা ব্যাপক প্রসার লাভ করে। এ সময় থেকে ইংরেজ শাসনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী মানসিকতা সৃষ্টি এবং স্বাজাত্যবোধ জাগরিত করার জন্য একের পর এক দেশাত্মবোধক গান রচিত হতে থাকে। দেশের ঐশ্বর্য বর্ণনা এবং দেশের বীর নায়কদের বীরত্বগাঁথা এসব গানের বিষয়বস্তু। বঙ্কিমচন্দ্র, রবীন্দ্রনাথ, দ্বিজেন্দ্রলাল, রজনীকান্ত, অতুলপ্রসাদ, কাজী নজরুল, মুকুন্দদাস, ইকবাল, তালিম হোসেন, ফররুখ আহমদ প্রমুখ কবি ও গীতিকার প্রচুর দেশপ্রেমমূলক গান রচনা করেন। দেশের কোনো সঙ্কটময় মুহূর্তে দেশাত্মবোধক গান জনগণের মনে আশা ও শক্তি সঞ্চার করে। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশাত্মবোধক গান দেশের সাধারণ জনগণ গেরিলা যোদ্ধা এবং রণক্ষেত্রে মুক্তিযোদ্ধাদের মনে প্রবল শক্তি, সাহস ও আশার সঞ্চার করেছিল। এখনও এ শ্রেণির গান নতুন প্রজন্মকে দেশের অতীত ইতিহাস জানতে এবং দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে সহায়তা করছে।

এখনো তৈরি হচ্ছে দেশাত্মবোধক এর নতুন নতুন গান। ২০১৯ সালের ১৬ই ডিসেম্বর উপলক্ষে ৫টি দেশাত্মবোধক গান এর কাজ শুরু হয়েছে। মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে সদ্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত পরিচালক ফরিদ আহমেদ এই গানের কাজগুলো করছেন। বাংলাদেশ বেতারের আয়োজনে এই প্রজেক্ট এর সবগুলো গানের কথা লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান। গানগুলি হলো একাত্তরের যুদ্ধের দিন, বিজয় বিজয় মানে তো হৃদয়ের উচ্ছ্বাস, মাগো চোখের দেখায় দেখছি তোমায়, উৎপীড়িতের সঙ্গীতে শিহরিত লোকালয় এবং আমার সোনার বাংলা। গানগুলোতে কণ্ঠ দিবেন মোহাম্মদ রফিকুল আলম, দিনাজ জাহান মুন্নি, প্রিয়াঙ্কাা গোপ। আরো দু’জন শিল্পী
চূড়ান্ত হবার পথে। গানগুলোর সময় চূড়ান্ত না হলেও মহান বিজয় দিবসের দিন বাংলাদেশ বেতারের বিশেষ অনুষ্ঠান গীতি নকশার মাধ্যমে গান গুলো প্রচারিত হবে।

Related Articles

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

18,780FansLike
700SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles