৬৮তম জন্মদিনে নন্দিত কণ্ঠশিল্পী ফরিদা পারভীন…

– সুব্রত মণ্ডল সৃজন।

ফরিদা পরভীন যে বাংলাদেশের একজন স্বনামধন্য কণ্ঠশিল্পী, তা বলার আর অপেক্ষা রাখে না। তিনি মূলত পল্লীগীতি গেয়ে থাকেন। বিশেষ করে তিনি লালন সঙ্গীতের জন্য বেশি জনপ্রিয়। জন্ম নাটোরে হলেও বড় হয়েছেন কুষ্টিয়ায়। ১৯৬৮ সালে তিনি রাজশাহী বেতারে নজরুল সঙ্গীতের জন্য নির্বাচিত হন। নজরুলগীতি দিয়ে শুরু করলেও তিনি পরবর্তীতে ১৯৭৩ সালের দিকে দেশাত্মবোধক গেয়ে বেশ জনপ্রিয়তা অর্জন করেন।

৩১ ডিসেম্বর কন্ঠশিল্পী ফরিদা পারভীন ১৯৫৪ খ্রিস্টাব্দের আজকের এই দিনেই নাটোর জেলার সিংড়া থানার শাঔঁল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা প্রয়াত দেলোয়ার হোসেন পেশায় ছিলেন সাধারণ চিকিৎসক। মা রৌফা বেগম।

ফরিদা পারভীনের কর্মজীবন সঙ্গীতময়। শুধু লালনের গান নয়, তিনি একাধারে গেয়েছেন আধুনিক এবং দেশাত্মবোধক গান। ফরিদা পারভীনের গাওয়া আধুনিক, দেশাত্মবোধক কিংবা লালন সাঁইয়ের গান সমান ভাবেই জনপ্রিয়।
তার জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে-
এই পদ্মা, এই মেঘনা, এই যমুনা-সুরমা নদীর তটে, তোমরা ভুলেই গেছো মল্লিকাদির নাম, নিন্দার কাঁটা যদি না বিঁধিল গায়ে প্রেমের কী সাধ আছে বলো, খাঁচার ভিতর, বাড়ির কাছে আরশি নগর’ ইত্যাদি।
তার এ্যালবামের মধ্যে রয়েছে-

  • ১৯৭৬ খ্রিস্টাব্দে ‘অচিন পাখি’ নামে একটি লংপ্লে রেকর্ড বের হয়। স্পন্সার করে ‘শ্রোতার আসর’ বর্তমানে এসিআই কোম্পানি।
  • ডন কোম্পানি থেকে ‘লালনগীতি’।
  • সারগাম থেকে ‘লালনের গান’।
  • দোয়েল প্রডাক্টস থেকে ‘দেশাত্মবোধক/আধুনিক/লালন’ মিলে একটা ক্যাসেট।
  • আরশি নগর-এর ব্যানারে লালনের গান ‘আমারে কি রাখবেন গুরু চরণে’।
  • বেঙ্গল ফাউন্ডেশন থেকে ‘সময় গেলে সাধন হবে না’।
  • আবুল উলাইয়ার পরিবেশনায় ‘আশা পূর্ণ হলো না’।
  • ‘লাইভ কনসার্ট ইন জাপান’ নামে একটা এ্যালবাম বের করছে আবুল উলাইয়া।
  • তোমার মতো দয়াল বন্ধু আর পাবো না।
  • সমুদ্রের কূলেতে বসে।
  • হিট সঙস অব ফরিদা পারভীন : মিলেনিয়াম/বহুদিন হলো ভেংগেছি ঘর। প্রভৃতি।

পুরস্কার/পদকের ঝুলিতে আছে-
তিনি ফুকুওয়াকা এশিয়ান কালচারাল প্রাইজ ২০০৮ এ সেরা সঙ্গীতের জন্য পুরষ্কৃত হন। এছাড়া একুশে পদক ১৯৮৭ এবং জাতীয় চলচ্চিত্র পদকে ছায়াছবির গানে সেরা কন্ঠদানকারী হিসাবে ১৯৯৩ সালে পদক পেয়েছেন। সিটিসেল-চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ডস ও অনন্যা শীর্ষ দশ পুরস্কার পেয়েছেন।

এই মহান শিল্পী চিরদিন তার সৃষ্টিকর্মের মধ্য দিয়ে বেঁচে থাকবেন তার ভক্তহৃদয়ে, বেঁচে থাকবেন এই বাংলায়। জয় হোক বাংলা গানের। সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ হতে শিল্পী ফরিদা পারভীনের জন্য রইলো জন্মদিনের অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা সহিত শুভ কামনা।

Related Articles

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest Articles