‘বস’ আমি যতটুকু পেরেছি, ততটুকু গেয়েছি…

– শাহরিয়ার খান সাকিব।

লিখতে পারিনা কোন গান আজ তুমি ছাড়া
ভাবতে পারিনা কোন কিছু আর তুমি ছাড়া।
কি যে যন্ত্রনা এই পথচলা।
বিরহ স্মৃতি তোমাকে ঘিরে তুমি জান না।।

হারানো দিনগুলিতে ছিলে তুমি জড়িয়ে
এই মনের সীমান্তে ছিল সুখ ছড়িয়ে
কিযে যন্ত্রনা এই পথচলা
বিরহ স্মৃতি তোমাকে ঘিরে তুমি জান না।।

আকাশে চাঁদ ছিল একা
পাহাড়ি ঝর্ণা ঝরা
তাদের মনেতে ব্যথা ছিল কিনা বুঝিনি
সে ব্যথা বুঝার আগে
হারিয়ে তোমাকে
তোমাকে হারিয়ে বেদনা ঝরেছে হৃদয়ে
কি যে বেদনা তুমি বোঝ না
তোমাকে ভুলে থাকা কোনদিন বুঝি হল না।।

উপরের গানটি সবার খুবই পরিচিত। গানটি গেয়েছেন নগরবাউল জেমস। লাকী আখন্দের জন্মদিনে সেই গানটি নজরে পরে। আর কথা হয় জেমসের সাথে। জানা হয় গানটি সম্পর্কে অজানা কথা। জেমস বলেন, আমি লাকী ভাইয়ের সাথে তেমন কাজ করিনি। তবে পরিচিত ছিলাম। অনেক পছন্দ করতো আমার গান। আমাকে দিয়ে একটি গান করিয়েছেন। আমি আগেই বলেছি বস আমি আপনার মনের মত গাইতে পারবো না। লাকী ভাই গাওয়ালেন।
গানের প্রথম দুই লাইন লাকী ভাই লিখেছেন। গানের মূল গীতিকবি গোলম মোর্শেদ। ওনার সাথে কথা বললেও এই বিষয়ে জানতে পারবেন। গানটির প্রথম দুই লাইন লাকী ভাই লিখেছেন স্কুলে যখন পড়তেন তখন। অনেক আগের কথা। গানটি রেকর্ডিং হওয়ার পর আমি লাকী ভাইকে বলি বস আমি যতটুকু পেরেছি, ততটুকু করেছি। এর বেশি পারি নি। আমার কথা শুনে লাকি ভাই আমাকে ধরে হেসে বলেন, তুমি যতটুকু পেরেছো ততটুকু গেয়েছো, এটা যে স্বীকার করলে এতেই আমি খুশি। আসলে লাকী ভাই গান নিয়ে অনেক গভীর চিন্তা করতো। গানের ভেতরে ডুকে যেতো। তাই তিনি গানের মধ্যে কি চাইতেন তা না বুঝলে তার মনের মতো গান হতো না। গানের ব্যাপারে তিনি কোনদিন কম্প্রোমাইজ করতেন না। ভালো কিছু করার চিন্তা ছিলো সব সময়।

কিন্তু সেই মানুষটি যখন জীবনের শেষ মূর্হুতে আসে। তখন কিন্তু বিশাল বড় অর্থ সংকটে পরে। দুই দফায় প্রধানমন্ত্রী সহযোগীতা করেছেন। কিন্তু সেই সময় যদি তার গানের রয়েলিটি দিতো তাহলে তার চিকিৎসা করাতে কষ্ট হতো না। এমনি কথা বলেন শিল্পী খুরশীদ আলম। বাংলাদেশের শিল্পী সমাজ তাদের অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সব সময়। তাদের পাওনা তারা পাচ্ছে না বলে দাবি করেন খুরশীদ আলম। লাকী’র মতো এমন একজন লিজেন্ড কেন এতো কাজ করার পরও অন্যের নিকটে হাত পাততে হবে ? আমরা শিল্পীকে মূল্য দিতে জানিনা। লাকী খুবই ভালো মানুষ ছিলেন। গান নিয়ে তিনি নিজে স্বপ্ন দেখতেন, অন্যকে স্বপ্ন দেখাতেন। তার জন্য দোয়া করি যেনো শান্তিতে থাকেন সুখে থাকেন কবরে। সঙ্গীতাঙ্গন এর পক্ষ থেকে ও দোয়া রইলো।

Related Articles

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest Articles