Friday, August 19, 2022

সঙ্গীতাঙ্গন-ই তার সফলতার চাবিকাঠি…

মোশারফ হোসেন মুন্না।

গ্রামের আঁকাবাঁকা মেঠো পথ ছেড়ে শহরে পাড়ি জমিয়েছিলেন তরুণ প্রজন্মের গীতিকবি রবিউল আউয়াল। আর গ্রাম ছেড়ে শহরে আসার একটাই মাত্র স্বপ্ন ছিল তার, শুধু সঙ্গীতাঙ্গন এর কাজ করার জন্য। তার স্বপ্ন ছিল সঙ্গীতাঙ্গন পত্রিকায় কাজ করা। সঙ্গীতকে নিয়ে কাজ করা। মূলত সঙ্গীতাঙ্গনকে ঘিরেই তার পথ চলা। পথচলাটা যদিও সঙ্গীতাঙ্গন এর হাত ধরে, তবে এখন তিনি আর সঙ্গীতাঙ্গনে থেমে নেই। তার স্বপ্ন এখন সঙ্গীতাঙ্গনকে ছাপিয়ে বহুদূর চলে গেছে। তিনি এখন সঙ্গীতাঙ্গনের হাত ধরেই পথ চলতে চান না তিনি এখন পথ চলতে চান মুক্ত পাখির মতো ডানা ঝাপটিয়ে যেখানে খুশি যেভাবে খুশি ছুটে বেড়াবেন। সঙ্গীতাঙ্গনও তাকে সেই স্বাধীনতা দিয়েছেন মুক্তভাবে উড়ার জন্য। আর তিনি উড়তে উড়তে চলে গেলেন দেশ ছেড়ে দেশের বাহিরে।

রবিউল আউয়াল এর কথায় এই প্রথম বাংলা গানে কন্ঠ দিলেন ওস্তাদ রাহাত ফাতেহ আলী খান। রাহাত ফাতে আলী খানের জন্য যদিও বাংলা গানে প্রথম কণ্ঠ দেওয়া তবে রবিউল আউয়াল এর আগেও পাকিস্তানের আশরাফকে দিয়ে গান করিয়েছেন। বিদেশীদের সাথে এটা হল রবিউল আউয়াল এর দ্বিতীয় কাজ। ওস্তাদ রাহাত ফাতেহ আলী খান হলেন একজন পাকিস্তানী সঙ্গীত শিল্পী। যিনি প্রাথমিকভাবে মুসলিম সুফি হিসেবে ভক্তিমুলক গান গাইতেন। তার চাচা ওস্তাদ নূসরত ফাতেহ আলী খান এবং পিতা ওস্তাদ ফারুখ ফাতেহ আলী খান। এছাড়াও তিনি পুরাণখ্যাত কাওয়ালি শিল্পী ফাতেহ আলী খানের নাতি হন। কাওয়ালি ছাড়াও, তিনি গজল গাইতেন এবং অন্যান্য মৃদু সঙ্গীতেও খ্যাতি রয়েছে। তবে বলিউড এবং বলিউডের জনপ্রিয় একজন প্লেব্যাক শিল্পী হিসেবে সবচেয়ে বেশ তার পরিচিতি রয়েছে। তিনি কাওয়ালি এবং শাস্ত্রীয় ঐতিহ্যগত সঙ্গীতশিল্পীদের একটি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি তার চাচা শাস্ত্রীয় সঙ্গীত ও কাওয়ালী শিল্পী নুসরাত ফাতেহ আলী খান এর কাছ থেকে সঙ্গীতের তালিম লাভ করেন। রাহাতকে তার চাচা ওস্তাদ নুসরাত ফাতেহ আলী খান কর্তৃক কাওয়ালী সঙ্গীতের ঐতিহ্যেকে ধারন করার লক্ষ্যে তৈরী করেন এবং মাত্র তিন বছর বয়স থেকে তিনি তার চাচা ও পিতার সাথে গান গাওয়া শুরু করেন। গত ২৫শে নভেম্বর এই প্রথম ওস্তাদ রাহাত ফাতেহ আলী খান এর একটি বাংলা গান প্রকাশিত হয়। তার প্রথম প্রকাশিত বাংলা গান ‘তোমারই নাম লেখা’ শিরোনামের এই গানটি লিখেছেন বাংলাদেশের তরুন গীতিকার রবিউল আউয়াল এবং সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন পাকিস্তানি সঙ্গীত শিল্পী সালমান আশরাফ।

গানটি প্রসঙ্গে রবিউল আউয়াল বলেন, ওস্তাদ রাহাত ফাতেহ আলী খানের কন্ঠে আমার কথায় প্রথম বাংলা গান। এটা আমার কাছে সত্যিই খুব আনন্দের এবং গৌরবের। তবে আমার এই আনন্দ এবং গৌরবে যার অবদান বটছায়া হয়ে কাজ করেছে তিনি হলেন বাঙালী প্রবাসী ডাঃ রোকসানা আক্তার লিপি আপু। তার ভালবাসা ও সহযোগীতায় দেশের বাহিরে প্রথম আমার গান করেন পাকিস্তানি কন্ঠশিল্পী সালমান আশরাফ ভাই। তারপর এখন আবার নতুন করে ওস্তাদ রাহাত ফাতেহ আলী খান এর কন্ঠে ‘তোমারই নাম লেখা’ শিরোনামের এই গানটি। কৃতজ্ঞতা ও ভালবাসা জানাই প্রবাসী ডাঃ রোকসানা আক্তার লিপি আপুকে। অসাধারন একটি গান হয়েছে। ওস্তাদ রাহাত ফাতেহ আলী খান এর গাওয়া ‘তোমারই নাম লেখা’ শিরোনামের গানটি এসএমএসবি প্রোডাকশন এবং ডাঃ রোকসানা আক্তার এর প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রকাশিত হয়েছে।

Related Articles

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

18,780FansLike
700SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles